বৃহস্পতিবার , ২৮ জানুয়ারি ২০২১

১৩ টি অবৈধ ট্রাক্টর আটক করেছে রৌমারী থানা পুলিশ

রৌমারী (কুড়িগ্রাম) প্রতিনিধি: কুড়িগ্রামের রৌমারীতে অবৈধ ৭৫টি ট্রাক্টরের মধ্যে ১৩টি আটক করেছে থানা পুলিশ। গতকাল ১০ ফেব্রুয়ারী ( সোমবার) ১২ টার দিকে এসব ট্রাক্টর (কাকড়া) আটক করা হয়।
পুলিশ ও স্থানীয় সুত্রে জানা যায় দীর্ঘদিন ধরে রৌমারী থানায় প্রায় শতাধীক ট্রাক্টর (কাকড়া) গাড়ি অবৈধ ভাবে ব্রহ্মপুত্র নদের বালু ও অন্যান্য মালামাল বহন করে আসছে। এতে ট্রাক্টরের বিকট শব্দে দূষণ ও বালুতে রাস্তার পাশের পরিবেশ দূষিত হচ্ছে। যার ফলে বসতবাড়ির লোকজন শ্বাসকষ্ট জনিত রোগসহ বিভিন্ন জটিল রোগে আক্রান্ত হচ্ছে। পরীক্ষার্থী ও সাধারন শিক্ষার্থীরা নিয়মিত ঠিক ভাবে পড়াশোনা করতে পারছে না। অতি শব্দে বিভিন্ন সরকারি ও বেসরকারি প্রতিষ্ঠানে অফিসিয়ালি কাজকর্মে ব্যহত হচ্ছে। বিকট শব্দে অসুস্থ ব্যক্তিরা আরো বেশি অসুস্থ হয়ে পড়ছে। অতিমাত্রায় অবৈধগাড়ি চলাচলে সরকারের গ্রামীণ জনপদের রাস্তাঘাট ভেঙ্গে গিয়ে যাতায়াতের অযোগ্য হয়ে পড়েছে।
এব্যাপারে রৌমারী সিজি জামান সরকারি উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক আবু হোরায়রা বলেন, অবৈধ ট্রাক্টর গুলো রাস্তায় বেপরোয়া ভাবে চালায়। এর আগে আমার বিদ্যালয়ের কয়েকজন শিক্ষার্থী দূর্ঘটনার শিকার হয়েছে। তাই প্রশাসনের কাছে গাড়িগুলো বন্ধের জোর দাবী করছি।
রৌমারী মর্নিংসান কিন্ডার গার্টেন এর অধ্যক্ষ মো. সোহরাব হোসেন অভিযোগ করে বলেন, আমার স্কুলটি রাস্তার পাশে হওয়ায় ট্রাক্টরের বিকট শব্দে পড়ালেখা করানো খুবই সমস্যার সৃষ্টি হয়েছে। তাছাড়া শিক্ষার্থীরা জীবনের ঝুকি নিয়ে রাস্তায় যাতায়াত করে।

এনিয়ে বিভিন্ন জাতীয় দৈনিক, আঞ্চলিক ও অনলাইনে একাধীক পত্রিকায় সংবাদ প্রকাশিত হলে প্রসাশনের টনক নড়ে। যার ফলে রৌমারী থানার পুলিশ এ পর্যন্ত ১৩টি ট্রাক্টর আটক করে এবং তাদের বিরুদ্ধে যানবাহন আইনে মামলা দিয়েছে। অপর দিকে ছাড়িয়ে নিতে এক শ্রেণীর অসাধু বালু ব্যাবসায়ী ও ট্রাক্টরের মালিক বিভিন্ন মহলে নানা প্রকার তদবির চালাচ্ছে।
উল্লেখ্য কৃষি বান্ধব সরকারের ভর্তুকি দেওয়া ট্রাক্টর জমি চাষাবাদ না করে মালবাহি হিসেবে ব্যবহার করায় প্রতিনিয়তই দূর্ঘটনা ঘটেই চলছে। কেড়ে নিয়েছে কোমলমতি স্কুল শিক্ষার্থীসহ বেশ কিছু জনপ্রাণ। এ নিয়ে একাধীকবার মিছিল মিটিং ও মানববন্ধনসহ ও আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হলেও এর কোন প্রতিফলন ঘটেনি। একদিকে যেমন শব্দ দূষণ অন্য দিকে জনপ্রান কেড়ে নেওয়ায় এ আত্মঘাতি যন্ত্রটি নিয়ে এলাকায় আলোচনা ও সমালোচনার ঝড় উঠেছে।
ইতোপূর্বে প্রশাসনের পক্ষ হতে অবৈধ ভাবে বালু উত্তোলন বন্ধে ড্রেজার মেশিন জব্দ ও জরিমানা করলেও সম্পন্ন ভাবে বন্ধ হচ্ছে না বালু উত্তোলন।

এ বিষয়ে ট্রাক্টর সমিতির সাবেক কোষাধক্ষ অবঃ আর্মি জিন্নাহ সাথে মোবাইল ফোনে কথা হলে তিনি জানান, হঠাৎ গাড়ি গুলো কেনো আটক করা হয়েছে তা জানতে পাইনি।
শহিদুল ইসলাম শালু চেয়ারম্যান রৌমারী সদর ইউনিয়ন ও ট্রাক্টর সমিতির সাধারণ সম্পাদকে জিজ্ঞাসা করলে তিনি বলেন, আটকের ব্যাপারে আমি কিছুই জানি না।

এ নিয়ে রৌমারী থানার ওসি আবু মোহাম্মদ দিলওয়ার হাসান ইনাম বলেন, অবৈধ ট্রাক্টর (কাকড়া )আটক করা হয়েছে। প্রতিটি গাড়ির পৃথক পৃথক ভাবে মামলা দেওয়ার প্রস্তুতি চলছে।

About newsroom

Check Also

এবার ঢাকায় সংবাদ সম্মেলনের ঘোষণা আলোচিত মেয়র কাদের মির্জার

নোয়াখালী প্রতিনিধি: নোয়াখালীর অন্যায়, অনিয়ম, টেন্ডারবাজি, চাকরি বাণিজ্য ও অপরাজনীতির বিরুদ্ধে এবার ঢাকায় সংবাদ সম্মেলনের …